মার্কিন নির্বাচনী কর্মকর্তার উপর তোপ দাগলেন ট্রাম্প

নিউইয়র্ক: নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর থেকেই নিজের পরাজয় অস্বীকার করে কারচুপির অভিযোগে সরব হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
তার সেই অভিযোগের বিরোধিতা করায় নিজের পদ থেকে অপসারিত হলেন সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ইনফ্রাস্ট্রাকচার সিকিউরিটি এজেন্সির (সিআইএসএ) প্রধান ক্রিস ক্রেবস।

বিগত ৩ নভেম্বরের সিআইএসএর পক্ষ থেকে এই নির্বাচনে কোনো রকম কারচুপির প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে জানিয়ে এই নির্বাচনকে, ‘যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে সুরক্ষিত নির্বাচন’ বলে বিবৃতি দেওয়া হয়েছিল। ক্রিস ক্রেবস কে বরখাস্ত করবারপর নিজের টুইট বার্তায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অভিযোগ করেছেন নির্বাচনের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে অত্যন্ত ভুল মন্তব্য করার ক্রিস ক্রেবসকে বরখাস্ত করতে বাধ্য হয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য সিআইএসএ’র রিউমার কন্ট্রোল বা গুজব নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত ওয়েবসাইটে বারংবার নির্বাচন নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য খণ্ডন করার প্রচেষ্টার বেশিরভাগ প্রভাব পড়েছে স্বয়ং প্রেসিডেন্টের ওপরেই,যার কারণেই ক্রিস ক্রেবসের সাথে বিরোধে জড়িয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

নিজের পদ থেকে অপসারিত হওয়ার পর নিজেরটুইট বার্তায় ক্রিস ক্রেবস আবার জানিয়েছেন ” নির্বাচনী পদ্ধতি জালিয়াতির যে অভিযোগ তোলা হয়েছে, ৫৯ জন নির্বাচনী নিরাপত্তা কর্মকর্তা একমত হয়েছেন, আমাদের জানা মতে কোন ঘটনাতেই এরকম অভিযোগের ভিত্তি নেই এবং প্রযুক্তিগতভাবেও সেটা সম্ভব নয়।”




%d bloggers like this: