বিনা অনুমতিতে মহিলার ছবি তুলে যুবক আটক

নিজস্ব সংবাদদাতা,কলকাতা: রাস্তা ঘাটে, বাসে ট্রেনে মহিলাদের হেনস্থার ঘটনা নতুন কিছু নয় আমাদের দেশে। ঘটনাগুলো দুঃখজনক হলেও বাস্তবের চিত্রটা এটাই। আর এইসব ক্ষেত্রে বেশিরভাগ মেয়েরাই চুপ করে থাকে। সমস্যা বেড়ে যাওয়ার ভয়ে কিছু বলতে ভয় পান। তাঁদের মনে এটাই আসে যে প্রতিবাদ করলে সমস্যা আরও বাড়তে পারে। কিন্তু কলকাতার এক মহিলা এসব কিছু না ভেবে উপযুক্ত শিক্ষা দিলেন এক হেনস্থাকারীকে।

পুলিশের তরফ থেকে জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটে বিএনআর ক্রসিং-এর সামনে। ২২৭ নম্বর বাসে উঠেছিলেন ওই মহিলা। বাসে যাওয়ার সময় তিনি লক্ষ্য করেন যে সহযাত্রীদের মধ্যে এক ব্যক্তি সমানে তাঁর ছবি তুলছে। প্রথমটায় তাঁর ধারণা ভুল ভেবে ব্যাপারটাকে পাত্তা দেননি। কিন্তু পরে তিনি বুঝতে পারেন তাঁর ধারণা একেবারেই ঠিক। কেন না, ওই ব্যক্তি একের পর এক তাঁর ছবি তুলেই যাচ্ছিলেন।

এরপর মহিলা আর চুপ করে বসে থাকেননি নিজের সিটে। তিনি উঠে গিয়ে ঘটনার প্রতিবাদ করেন এবং ওই ব্যক্তির কাছ থেকে তাঁর মোবাইল ফোনটি চান। মহিলা দাবি করেন, তিনি নিজে হাতে ওই মোবাইল থেকে ছবিগুলো ডিলিট করে ফোনটি আবার ফিরিয়ে দেবেন। কিন্তু ওই ব্যক্তি সেই অভিযোগ অস্বীকার করেন। দুজনের কথাকাটাকাটির মধ্যে তিনি ওই মহিলাকে ধাক্কা দিয়ে বাস থেকে নেমে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাও করেন। কিন্তু ওই মহিলা ব্যক্তিটির নামার রাস্তায় রুখে দাঁড়ান এবং ঠেলাঠেলির মধ্যেই পুলিশের আপৎকালীন পরিষেবা নম্বর ১০০-তে ফোন করেন।

এদিন পুলিশ জানিয়েছে যে, বাসটি বিএনআর ক্রসিংয়ের কাছে এসে যাত্রী তুলছিল। ঠিক সেই সময়েই পোর্ট পুলিশের একটি ভ্যানও ওখান দিয়ে টহল দিচ্ছিল। দাঁড়িয়ে থাকা বাসের মধ্যে উত্তেজনা ওই পুলিশকর্মীদের চোখ এড়িয়ে যায়নি। তাঁরা এর পর বাসে ঢুকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত ব্যক্তির নাম জিতু সিং। তিনি টিটাগড়ের বাসিন্দা। পুলিশ আপাতত তাঁর ট্রেনের টিকিট এবং মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করেছে। এছাড়া ব্যক্তিটির ফোন ফরেনসিক তদন্তের জন্যও পাঠানো হয়েছে বলে তথ্যসূত্রে খবর।




%d bloggers like this: