বাড়ি থেকেই বৃদ্ধের রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার, খুনের অভিযোগ ছেলের বিরুদ্ধে

কলকাতা: শহর কলকাতায় ছেলের হাতে খুন হলেন বাবা। ঘটনাটি ঘটেছে যাদবপুর থানার ১/সি রায়পুর রোড ইস্ট এলাকায়। কি কারণে খুন হতে হল বাবাকে, সেটা অনেকেই বুঝতে পারছে না। যাদবপুর থানা থেকে তদন্ত করে পুলিশ জানিয়েছে, সম্ভবত টাকা না পেয়েই আক্রোশের বশে বাবাকে খুন করেছে ছেলে। কারণ ছেলে বিলাসবহুল জীবনে অভ্যস্ত ছিল।

গতকাল রাতে বাড়ির নিচ থেকে উদ্ধার করে ৭০ বছর বয়স্ক শুভময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে। টাকা না পেয়েই আক্রোশের বশে বাবাকে খুন করে অভিযুক্ত অর্পণ বন্দ্যোপাধ্যায়। বাড়ির নিচে রক্তাক্ত দেহ দেখতে পেয়ে পুলিসকে খবর দেয় স্থানীয়রা। পুলিস এসে দেহটি উদ্ধার করে। এরপর ছেলেকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিস। আলাদা করে নিহতের স্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলেন তদন্তকারী অফিসাররা।

প্রতিবেশীদের অভিযোগ, রায়পুর রোড ইস্টের বাসিন্দা অর্পণ বন্দ্যোপাধ্যায় মাঝেমধ্যেই বাবা শুভময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে মারধর করত।
অভিযুক্ত অর্পণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ মানসিকভাবে সুস্থ নন তিনি। পুলিস সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী নিহত শুভময় ব্যানার্জি জর্জ কোর্টের টাইপিস্ট ছিলেন।

গতকাল সকালেও বাবাকে মারধর করে অর্পণ। এদিন রাতেও অনেক অশান্তি হয় বলে অভিযোগ। বৃদ্ধের দেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। আসলে কি কারণে খুন করা হয়েছে জানতে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে পুলিস।




%d bloggers like this: