টাকা ফেরতের দাবিতে চন্দ্রকোনায় পোস্ট অফিস ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন গ্রাহকেরা

তারক হরি, পশ্চিম মেদিনীপুর: দীর্ঘ এক বছর কেটে গেলেও টাকা ফেরত না পেয়ে অবশেষে বিক্ষোভে সামিল হলেন গ্রাহকেরা। ঘটনাটি চন্দ্রকোনার কুয়াপুর সাব পোস্ট অফিসের। শুক্রবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনা ২ নং ব্লকের মিত্র সেন লেন কুয়াপুর সাব পোস্ট অফিসের সামনে পোস্ট অফিসের গেট আটকে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন প্রায় ৩২জন গ্রাহক। পুরুষ মহিলা এমনকি বয়স্ক বৃদ্ধ-বৃদ্ধারাও সামিল হন এই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে।

এই ৩২ জন গ্রাহকের প্রায় ১৬ লক্ষ টাকা এখনও পর্যন্ত না মেলাই ক্ষোভে ফেটে পড়েন তাঁরা। উক্ত পোস্ট অফিসের এক গ্রাহক জানিয়েছেন, “আমি হত দরিদ্র মানুষ। তিল তিল করে কষ্টার্জিত টাকা জমা রেখে ছিলাম এই পোস্ট অফিসে, পরে টাকা আত্মসাৎ বা গরমিলের খবর পায়। আজ এক বছর কেটে গেলেও পোস্ট অফিস কর্তৃপক্ষ উদাসীন। আমাদের টাকা ফেরত দেওয়ার কোনও ব্যাবস্থাই গ্রহন করছে না আধিকারিকেরা। গত কয়েকদিন আগে আমার পিতৃবিয়োগ হয়েছে, জমানো টাকা ফেরত পেলে খুবই উপকার হবে। আজ আমরা ৩২ জন গ্রাহক আমাদের জমানো টাকা ফেরৎ এর দাবিতে পোস্ট অফিসের সামনে হাজির হয়েছি। আমাদের টাকা ফেরৎ এর ব্যাবস্থা না করলে পরবর্তী কালে আমরা গ্রাহকেরা এই অফিসে আমরণ ধর্না দেব।”

হতদরিদ্র এই মানুষগুলি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে তাঁদের কষ্টার্জিত জমানো টাকা অবিলম্বে ফেরত পাওয়ার করুণ আর্জি জানিয়েছেন তাঁরা।
কয়েক ঘণ্টা বিক্ষোভের পর অবশ্য পোস্ট অফিস কর্মীদের আশ্বাসে উঠে যায় এই বিক্ষোভ কর্মসূচি।




%d bloggers like this: