লক্ষীরতন শুক্লাকে নিয়ে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ,রাজনীতি ছেড়ে খেলায় সময় দেবে

শ্রীশা চৌধুরী, কলকাতা: লক্ষ্মীরতন শুক্লার পদত্যাগ প্রসঙ্গে এক সাংবাদিক বৈঠক হয়। সেই সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি দাবি করেন খেলায় ফিরে খেলার সময় দিতে চান লক্ষ্মীরতন শুক্লা, তাই এই নিয়ে কোনো জল্পনার কিছু নেই। লক্ষ্মীরতন শুক্লা রাজনীতি থেকে সরে যেতে চায়, মন্ত্রিত্ব থেকে পদত্যাগ করছে এমন কথা সে লেখেনি। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “লক্ষ্মী ভালো ছেলে। কেউ পদত্যাগ করতেই পারে, কী যায় আসে। লক্ষ্মী যে চিঠি লিখেছে, তাতে লেখেনি যে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করছে। লিখেছে যে রাজনীতি থেকে সরে যেতে চায়। ও খেলায় আরও সময় দিতে চায়। তাই মন্ত্রিত্ব থেকে সরতে চায়। তবে এই টার্মের শেষ পর্যন্ত ও বিধায়ক থাকবে। ঠিক আছে। ও ভালো করে খেলাধুলো করুক। শুভেচ্ছা রইল।

রাজ্যপালকেও বলব, ওর পদত্যাগপত্র গ্রহণ করে নিতে।” সম্মুখে বিধানসভা নির্বাচন, রাজনিতি লক্ষ্মীরতন শুক্লার হঠাৎ পদত্যাগে বিধানসভা নির্বাচনের আগেই সরগরম হয়ে উঠলো। রাজ্যের ক্রীড়া ও যুব কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী হওয়ার পাশাপাশি হাওড়ার তৃণমূলের জেলা সভাপতি ছিলেন লক্ষ্মীরতন শুক্লা। খবর পাওয়া যায় যে দুই পদ থেকে অব্যাহতি চেয়েছেন তিনি। ঘনিষ্ট মহলে তিনি ক্ষোভ উগরে দেন যে তার অব্যাহতি চাওয়ার কারণ হল তিনি যেই ভাবে কাজ করতে চেয়েছিলেন, তিনি সেই ভাবে কাজ করতে পারেন নি।
এদিকে সামনেই বিধানসভা নির্বাচন। রাজনিতি তার আগেই সরগরম হয়ে উঠল লক্ষিরতন শুক্লার মন্ত্রিত্ব ত্যাগ করায়। যখন সাংবাদিক বৈঠকে যখন মুখ্যমন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লাকে “ভালো ছেলে” বলে সম্বোধন করেন, তখন অন্য সুরে গান গাইলেন রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায় ও তৃণমূলের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ।

লক্ষিরতণ শুক্লার পদত্যাগ নিয়ে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ খোঁচা দিয়ে বলেন, “যত তাড়াতাড়ি মুখোশ খোলে ততই ভাল।”
রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায় লক্ষ্মীরতন শুক্লার পদত্যাগ প্রসঙ্গে বলেন, ” “ভোটের আগে দলের সেনাপতির দায়িত্বে থাকা কেউ যদি চলে যায়, তাহলে সেটা যুদ্ধক্ষেত্র থেকে সরে যাওয়ার মতই ঘটনা।” তিনি আরও বলেন, “নির্বাচনের আগে একাজটা ঠিক হয়নি। তবে কেউ চলে গেলেও কিছু যায় আসে না।”

উল্লেখ্য, লক্ষ্মীর পদত্যাগের পরই নতুন সভাপতি হিসেবে নাম উঠে এসেছে তৃণমূলের অন্দরে অরূপ রায় অনুগামী বলে পরিচিত হাওড়া সদরের তৃণমূল নেতা ভাস্কর ভট্টাচার্যের। এবিষয়ে অরূপ রায় জানিয়েছেন, “এ ব্যাপারে উচ্চ নেতৃত্ব সাথে কথা হয়েছে। ভাস্কর ভালো ছেলে।” অন্যদিকে, বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ লক্ষ্মীরতন শুক্লার পদত্যাগের বিষয়ে মন্তব্য করেন। তিনি তৃণমূলকে খোঁচা দিয়ে বলেন “তৃণমূলে কেউ আদর্শ নিয়ে কাজ করতে পারেন না। দলে ভাঙন শুরু হয়েছে। আমি তো আগেই বলেছিলাম, ডিসেম্বর মাস থেকে তৃণমূলে ভাঙন শুরু হয়েছে। দলের প্রতিষ্ঠা দিবসেও দল ভাঙছে। আমাদের লোকজনকে মারতে গিয়ে নিজেদের লোককে হারাচ্ছে।”




%d bloggers like this: