‘বুলাদির শিবরাত্রী’ ইস্যুতে সায়নী ঘোষকে ‘অরিজিনাল যৌনকর্মী’ বলে তোপ সৌমিত্র খাঁর

নিজস্ব প্রতিবেদক : কদিন আগে থেকেই ফিল্মি পাড়ায় রাজনীতির কোপ ৷ সমালোচনা আর পাল্টা জবাবে সরগরম শোস্যাল মিডিয়া ৷ সায়নী ঘোষের ফেসবুক পুরানো ফেসবুক পোষ্টে ‘শিবলিঙ্গে বুলাদির কন্ডোম পরানোর’ মিম কে ঘিরেই আক্রমনের শিকার অভিনেত্রী ৷ যদিও সায়নীর দাবী এই পোষ্ট তার ফেসবুক হ্যাক করে করা হয়েছে ৷ আবারও সেই ঘটনার আগুনে ঘি দিলেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ ৷ অভিনেত্রীকে ‘অরিজিনাল যৌনকর্মী’ মন্তব্য করে খোলেআম জনসভায় তোপ দাগেন সৌমিত্র ৷

এদিন পূর্ব বর্ধমানের খন্ডঘোষের এক জনসভায় উপস্থিত ছিলেন সৌমিত্র খাঁ ৷ তিনি ভাষন দিতে গিয়ে প্রথমটাতেই টেনে আনেন অভিনেত্রী সায়নী ঘোষের কথা ৷ এ সময় তিনি সায়নী ঘোষকে উদ্দেশ্যে করে বলেন ,“আমাদের শিবলিঙ্গকে যারা অপমান করেছে, আমাদের মা মনসাকে যারা অপমান করে তারাই অরিজিনাল যৌনকর্মী বলে আমি মনে করি”।
এদিনের সভায় তিনি গোমাংস রান্না করার কথ তুলে দেবলীনা দত্ত ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও কড়া সমালোচনা করেন তিনি ৷

বক্তব্যের একপর্যায়ে তিনি ফ্লিম আর্টিষ্টদের উদ্দেশ্য করে বলেন , “ওই ফিল্ম আর্টিস্ট আছে কিছু যারা শুধু দক্ষিণ কলকাতায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ২ লক্ষ টাকা করে স্যালারি পায়, তাঁরা কি বলছে জানেন? এই বর্ধমানের শিব মন্দিরে, এই বুয়াইচণ্ডী কালী মন্দিরে, শিব মন্দিরে যে শিবলিঙ্গ থাকে সেই শিবলিঙ্গতে কন্ডোম পরিয়ে শিব পুজো করা হোক। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন, তাঁর কবিরা বলছে, মা সরস্বতী যৌনকর্মী? আমি শুধু একটা কথা বলতে চাই। তাঁকে জবাব দেওয়ার সময় এসেছে। না হলে এখানে মন্দির একটাও থাকবে না। না হলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আপনাদের ঘাড় ধরে বের করে দেবেন।”

এরপরই সায়নী ঘোষের উদ্দেশ্যে বলেন ”আমি সায়নী ঘোষকে বলতে চাই, তোমরা এই ধরনের কথা বলছ। ধর্মতলায় বসে বসে নাটক করছ। ওই ধর্মতলায় বসে বসে অনেক কিছু বলছ। আমরা তো বলছি না তোমারা যেদিন মসজিদে আজান পড়বে আমরা কিছু খারাপ কাজ করব। কিন্তু তৃণমূলের চাকরের মতো কিছু অভিনেতা-অভিনেত্রীরা বলছে যে দুর্গা পুজোর অষ্টমীর দিন গরুর মাংস খাওয়াবে। আমরা বলতে পারি দেখুন যে যাঁর ধর্মে বিশ্বাস করি। কিন্তু আমাদের শিবলিঙ্গকে যারা অপমান করেছে, আমাদের মা মনসাকে যারা অপমান করে, তারাই অরিজিনাল যৌনকর্মী বলে আমি মনে করি।”




%d bloggers like this: