Splusnews Kolkata
মঙ্গলবার , ২৯ জুন ২০২১ | ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. আন্তর্জাতিক
  2. কলকাতা
  3. খেলাধুলা
  4. চাকরী
  5. ট্রেন্ড
  6. দেশ
  7. পশ্চিমবঙ্গ
  8. প্রযুক্তি
  9. বানিজ্য
  10. বাংলাদেশ
  11. বিনোদন
  12. বিশেষ
  13. ভাইরাল
  14. মতামত
  15. রাজনীতি

রাস্তা নিয়ে বিবাদের জেরে কার্যত ‘একঘরে’ করা হলো ৭ পরিবারকে

প্রতিবেদক
splusnews
জুন ২৯, ২০২১ ১১:১৭ অপরাহ্ণ
রাস্তা নিয়ে বিবাদের জেরে কার্যত ‘একঘরে’ করা হলো ৭ পরিবারকে

তারক হরি, পশ্চিম মেদিনীপুর : মধ্যযুগীয় গ্রামীণ ফতোয়ার পুনরাবৃত্তি হলো মেদিনীপুরে ! দীর্ঘ প্রায় এক বছর ধরে একঘরে করে রাখা হল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ডেবরা ব্লকের কয়েকটি পরিবারকে ।

অভিযোগ সূত্রে জানাগিয়েছে,দীর্ঘ প্রায় এক বছর ধরে সামাজিক বয়কটের শিকার ডেবরা ব্লকের ১০/১ গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত কালুয়া আকুব গ্রামের বাসিন্দা কৃষ্ণেন্দু দাস গোস্বামী ও নকুল হাইতের পরিবার। তার পাশাপাশি গত ৬ মাস সামাজিক বয়কটের শিকার হয়েছেন নারায়ন চন্দ্র গাঁতাইত, বাদল গাঁতাইত, আশোক গাঁতাইত, অজিত গাঁতাইত, আসিত গাঁতাইত সহ অন্যান্য পরিবারগুলি। বয়কটের শিকার হওয়া গ্রামবাসী কৃষ্ণেন্দু দাস গোস্বামী’র অভিযোগ, স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের নির্দেশেই গ্রামের মানুষ তাঁদের পরিবারকে সামাজিকভাবে রিতীমত “একঘরে” করে রেখেছেন।

তাদের গ্রামের কলে পানীয় জল নেওয়া বারণ, গ্রামের মন্দিরে ওঠা বারণ, গ্রামের কোনও দোকানে বেচাকেনা যাবে না, ছাড় নেই চাষের কাজেও, এমন কি নিজেদের বাড়ির কোনও শুভ অনুষ্ঠানেও নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সমাজপতিরা ৷ শুধু তাই নয়, অন্য কোনও প্রতিবেশী যদি তাঁদের সাথে যোগাযোগ রাখেন বা বাড়িতে যান রেহাই নেই তাঁদেরও। কঠিন এই ফতোয়া অমান্য করে তার ফলও ভোগ করেছেন গোটা কয়েক পরিবার, বলে অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে ৷

স্থানীয় সূত্রের খবর,গ্রামের নতুন রাস্তা তৈরির জন্য কৃষ্ণেন্দু দাস গোস্বামী ও নকুল হাইতের রায়ত জমি ছাড়তে আদেশ দেন গ্রামের মোড়ল সহ শাসকদলের ঘনিষ্ঠ কর্তা ব্যক্তিরা। এই দুই পরিবার জানান, “গ্রামের রাস্তার জন্য আমরা একা জমি দেবো কেনো? তবে দুই পাশের জমি নিতে হবে।” এই নিয়ে শুরু হয় বচসা। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই গ্রামের দুটি পরিবারকে ডাক দেওয়া হয় সামাজিক বয়কটের। পরিবারের তরফে স্থানীয় পঞ্চায়েতকেও বিষয়টি জানানো হয়, কিন্তু কোনও সুরাহা মেলেনি! উল্টে ওই পঞ্চায়েতের কাছ থেকেও তাঁদের পরিবারকে বঞ্চনার শিকার হতে হয়েছে বলে অভিযোগ এনেছেন তাঁরা।

সামাজিক বয়কট হওয়া একটি পরিবারের গৃহকর্ত্রী ভবানী হাইত অভিযোগ করেন, “আমার দুটি বিবাহযোগ্য মেয়ের বিয়ে দিতে গেলেও, বারংবার শুভ অনুষ্ঠান আটকে দেয় গ্রামের কিছু ব্যক্তি। এমনকি আমাদের একশো দিনের কাজ থেকেও বঞ্চিত কর হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার বাড়ির তৈরির প্রয়োজনীয় মালও আটকে দেয় গ্রামের মাতব্বরেরা। আমাদের একবছর ধরে ‘একঘরে’ করে রাখা হয়েছে।”

একইরকম ভাবে রাস্তা তৈরির জন্য জমি দিতে না চাওয়া মোট ১৩ জন পরিবারকে সামাজিক ভাবে নানান সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত করে রাখার অভিযোগ উঠেছে।
তেমনই বয়কট হওয়া এক পরিবারের সদস্য অসিত কুমার গাঁতাইত অভিযোগ করেন, “গত প্রায় ৫-৬ মাস ধরে আমাদের চাষাবাদ করতে দেওয়া হয়নি। আমরা অনেক অনুনয় বিনয় করেছি, মন গলেনি কোনও পঞ্চায়েত সদস্যের। নিরুপায় হয়ে ‘একঘরে’ হয়ে বসবাস করছি।”

এ বিষয়ে কালুয়া আকুব গ্রামের পঞ্চায়েত সদস্য গোবিন্দ সামাইয়ের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,”যারা সামাজিক বয়কটের শিকার বলে অভিযোগ করছেন তা সম্পূর্ন ভিত্তিহীন। রাস্তা তৈরির পরিকল্পনা নিয়ে ওই পরিবার গুলির সাথে আলোচনার জন্য ডাকা হলেও তাঁরা কেউই আসেনি। উল্টে তাঁরা এই ভুল কথা এলাকায় ছড়াচ্ছেন।”এ ঘটনায় অভিযুক্ত শাসক দলের নেতাদের তরফেও কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি ৷ মুখে কুলুপ এঁটে রয়েছেন তারা ৷ ঘটনায় কথা বলতে রাজি হয়নি স্থানীয় প্রশাসনও ।

সর্বশেষ - পশ্চিমবঙ্গ

আপনার জন্য নির্বাচিত
দুবরাজপুরে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান ৩০০ পরিবারের

দুবরাজপুরে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান ৩০০ পরিবারের

মুখোমুখি হতে চলেছে ভারত এবং পাকিস্তান, দিনক্ষন চুড়ান্ত

মুখোমুখি হতে চলেছে ভারত এবং পাকিস্তান, দিনক্ষন চুড়ান্ত

দলবদলের পর এবার রাতারাতি বেশভূষাও বদল করে ফেললেন বাবুল সুপ্রিয়!

দলবদলের পর এবার রাতারাতি বেশভূষাও বদল করে ফেললেন বাবুল সুপ্রিয়!

পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে রাস্তায় সবং তৃণমূল কংগ্রেস

পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে রাস্তায় সবং তৃণমূল কংগ্রেস

টানা বর্ষার কবলে রাজ্য,জলে একাকার অসংখ্য এলাকা

টানা বর্ষার কবলে রাজ্য,জলে একাকার অসংখ্য এলাকা

ফেসবুকে অক্সিজেন দেবার প্রলোভন,সমাজকর্মীর ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারকচক্র

ফেসবুকে অক্সিজেন দেবার প্রলোভন,সমাজকর্মীর ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারকচক্র

জেনে নিন দেবী সরস্বতীর পুজোর মন্ত্র ও অর্থ

জেনে নিন দেবী সরস্বতীর পুজোর মন্ত্র ও অর্থ

বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে ধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার, বিয়ের পর মন্জুর হল জামিন

বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে ধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার, বিয়ের পর মন্জুর হল জামিন

বর্ষীয়ান অভিনেত্রী অনামিকা সাহার অভিযোগের উত্ত‍র দিলেন অপরাজিতা!

বর্ষীয়ান অভিনেত্রী অনামিকা সাহার অভিযোগের উত্ত‍র দিলেন অপরাজিতা!

বৃষ্টি উপেক্ষা করে ধনদেবী লক্ষী আসছেন ঘরে

বৃষ্টি উপেক্ষা করে ধনদেবী লক্ষী আসছেন ঘরে