কলাবনিতে গ্রামীন মেলার উদ্ভোধন করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ

শান্তনু রায়, পঃ মেদিনীপুর: সামনেই রয়েছে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনের কাজকর্ম যাতে সঠিক ভাবে আলাপ আলোচনার মধ্যামে সম্পন্ন হয়,তারই জন্য শনিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কেশিয়াড়ী ব্লকের কলাবনিতে দলীয় কার্যালয়ের উদ্বোধন করলো বিজেপি। যার দলীয় পতাকা উত্তোলন করে ও ফিতে কেটে উদ্বোধন করেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সাংসদ ও রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ।আর এখান থেকেই

অসুস্থ হয়ে যাওয়া সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সুস্থতা কামনা করেন তিনি। পরে এদিন কলাবনি গ্রামীণ মেলার উদ্বোধন করেন এবং এলাকার দুঃস্থদের হাতে শীতবস্ত্র প্রদান করা হয়। বক্তব্য রাখতে গিয়ে গ্রামীণ মেলায় শহরের ছোঁয়া পড়ছে বলে মন্তব্য করেন। মেলা কমিটিকেও বিভিন্ন পরামর্শ দিতে শোনা যায় সাংসদ দিলীপ ঘোষকে ।

কলকাতা তথা শহরের মেলার সঙ্গে গ্রামের মেলার পার্থক্য গড়ে তোলার কথা বলেন। এখন গ্রামের মেলাগুলিতেও শহরের ছোঁয়া লেগেছে। এ নিয়ে তার বক্তব্য,” সেখানে কলকাতার লোকেরাও নাচ, গান অনুষ্ঠান করছে আর এখানেও হচ্ছে। আমাদের ছেলে মেয়েরা যারা নাচ,গান জানে তাদের সুযোগ দিন। তাহলে ভালো হবে। ওদের প্রতিভার বিকাশ হবে।” মেলা উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাপতি শমিত দাশও। তিনি বলেন,”মেলা আরও বড় করে করুন।

আগামী বছর এই মেলা যেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর হাত দিয়ে উদ্বোধন হয়।” পরে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে খোঁচা দিতে ছাড়েননি সাংসদ। দিলীপ ঘোষ বলেন,” সাধারণত পশ্চিমবঙ্গের কোনায় কোনায় মেলা, খেলা চলে। আর আমাদের মুখ্যমন্ত্রী উদ্বোধন করেন। তাই আগামী বছর পর্যন্ত আমাদের অপেক্ষা করতে হবে এই মেলা উদ্বোধন নিয়ে।” গ্রামীণ মেলা চলবে আগামী ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত। রয়েছে নানা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও।




%d bloggers like this: