প্রেমে বাধা পরিবারের, ট্রেন লাইনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী যুগল

অভিজিৎ ব্যানার্জী, হাওড়া: গত শনিবার থেকে নিখোঁজ ছিল বাড়ির একমাত্র ছেলে পুনম রায়। সূত্রের খবর বাড়ি থেকে পালিয়ে পাশের গ্রামের পাঁচলার সাহাপুরের যুবতী অনুশ্রী দাশকে বিবাহ করে সে। কিন্তু মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে অনবরত চাপ দেওয়া হয় উলুবেড়িয়া-২ নম্বর ব্লকের রঘুদেবপুরের বাসুদেবপুরের পুনম রায়ের পরিবারকে। এরপরেই সোমবার রাত ৯.৩০ নাগাদ বাড়ির অদূরে দক্ষিণ পূর্ব রেলের বাউড়িয়া ও নলপুরের মাঝে ট্রেন থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হয় ওই তরুণ- তরুণী।

মঙ্গলবার সকালে থানায় অভিযোগ করতে যান মৃত পুনম রায়ের বাবা দিলীপ রায়। তবে পুলিশ অভিযোগ নিতে অস্বীকার করে বলে অভিযোগ করেন তিনি৷ মৃত তরুণের বাবা বলেন গত রবিবার দিন মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে পাঁচলা থানা মারফত চাপ দেওয়া হয় তাদের। এরপরেই ছেলের বাড়ির পক্ষ থেকে তারা দ্বারস্থ হন রাজাপুর থানায়, যদিও পুলিশের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়নি কোন অভিযোগই।

এদিকে তরুণের এমন পরিনতিতে শোকস্তব্ধ গোটা এলাকা। এদিকে ময়নাতদন্তের পর পুলিশের পক্ষ থেকে পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় মৃতদেহ। এদিকে তার চিরসঙ্গী তার খেলার মাঠ বেলকুলাই সি কে এ সি বিদ্যাপীঠের মাঠে তার মরদেহ এসে পৌঁছালে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে গোটা এলাকা।




%d bloggers like this: