১৫ তারিখ থেকে সামুদ্রিক মাছ ফিশিং শুরু হওয়া নিয়ে জটিলতা দীঘায়

নিজস্ব সংবাদদাতা পূর্ব মেদিনীপুর:- আগামী ১৫ তারিখ সামুদ্রিক ফিশিং ও সামুদ্রিক মাছ পাইকারি কেনা বেচার বাজার খোলা নিয়ে মহাকুমা প্রশাসনের আলোচনা সভা হলো শুক্রবার। স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে আলোচনা করে তবেই খোলা যাবে মৎস্য বন্দর ও সামুদ্রিক মাছের পাইকারি বাজার, সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী আগামী ১৫ তারিখ থেকে শুরু হতে চলেছে সামুদ্রিক মাছ ফিশিং এবং তার বেচাকেনার কারবার। আরে একে ঘিরেই বিভিন্ন এলাকায় তৈরি হয়েছিল জটিলতা। পূর্ব মেদিনীপুরের দীঘা মোহনা, শংকরপুর, শৌলা, পেটুয়াঘাট এ ছাড়াও বেশ কিছু জায়গায় রয়েছে ছোট-বড় মৎস্য জেটি সহ সামুদ্রিক মাছের নিলাম কেন্দ্র। মূলত এই সমস্ত জায়গায় আগামী ১৫ তারিখ থেকে শুরু হতে চলে ছিল সামুদ্রিক ফিশিং এবং সামুদ্রিক মাছের কেনাবেচার পাইকারি বাজার। কিন্তু বেঁকে বসেন এলাকার বাসিন্দা সহ মৎস্য জীবী সংগঠন গুলি। এর দরুন বিভিন্ন জায়গায় প্রদর্শন করেন এই সংগঠন। এর সমাধান সূত্র খুঁজতে শুক্রবার মহাকুমার শাসকের নেতৃত্বে মৎস্য দপ্তর, ট্রলার মালিক সংগঠন ও মৎস্য জীবীদের সংগঠন আলোচনায় বসেন। কিন্তু এই আলোচনাতেও রফা সূত্র অমিল, এলাকা ভিত্তিক সংগঠন গুলিকে নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে আলোচনাতেই মিলতে পারে রফা সূত্র।তাই স্থানীয় স্তরে আলোচনার মাধ্যমে এই মৎস্য বন্দর ও সামুদ্রিক মৎস্য নিলাম কেন্দ্র গুলি খোলার ব্যাপারে মত করলেন অধিকাংশ সংগঠন গুলি। এখন দেখার স্থানীয় স্তরে আলোচনায় কি উঠে আসে ? সেই দিকেই তাকিয়ে মহকুমা প্রশাসন থেকে আপামর মৎস্য জীবী।




%d bloggers like this: