হরিশ্চন্দ্রপুরে মোটর বাইক শোরুমে চুরি,এলাকায় চাঞ্চল্য

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদা: পাঁচ মাসের মধ্যে আবার মোটরবাইক শোরুমে চুরি। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার মধ্যরাতে হরিশ্চন্দ্রপুর-১ নং ব্লকের মহেন্দ্রপুর জিপির ভবানীপুর ব্রিজ মোড়ে কেজিএন অটো সেন্টার নামে এক মোটরবাইক শোরুমে। চোর দেওয়াল কেটে শোরুমে ঢুকে কম্পিউটার সহ নানা সরঞ্জাম চুরি করে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ। তিনটি সিসিটিভি ক্যামেরা, কম্পিউটার সিপিইউ ও পলিউশন মেশিন ভেঙে নষ্ট করে দিয়েছে বলে জানান। শোরুম মালিক ঘটনাটি হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে। অভিযোগ ও সিসিটিভি ফুটেজের ভিত্তিতে পুলিশ তা তদন্ত শুরু করেছে।

জানা যায় শনিবার সকালে শোরুম খুলতে এসে ঘটনাটি নজরে পড়ে ওই শরুমের মালিক শাজাহান আলী ও কর্মীদের।যার জেরে গভীর চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকায়।

শোরুমের মালিক শাজাহান আলী জানান প্রতিদিনের মতো গতকাল সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ শোরুম বন্ধ করে বাড়ি গিয়েছিল তারা। এদিকে শনিবার সকাল ৯টা নাগাদ শোরুমে এসে সাটার খুলে ভিতরে প্রবেশ করলে শোরুমের ভিতরের সমস্ত জিনিষ উলট পালট হয়ে পরে থাকতে দেখে।ভেঙে পরে রয়েছে তিনটি সিসিটিভি ক্যামেরা ও পলিউশন মেশিন। কম্পিউটারটিকে চুরি করে নিয়ে গেলেও সিপিইউটি ধানক্ষেতে ফেলে পালিয়ে চলে যায় বলে জানান।
দেওয়াল কেটে শোরুমে ঢুকলেও বাইক চুরি করে নিয়ে যেতে অসফল হয় দুষ্কৃতীরা।

অন্যদিকে বারেবারে এই ঘটনায় ব্যবসার ক্ষেত্রে নিরাপত্তা নিয়ে চরম উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

শোরুমটি রয়েছে চাচল গামী ৮১ নং জাতীয় সড়কের ধারে ভবানীপুর ব্রিজ মোড়ে। শোরুমটির সামনে রয়েছে সামসি নিয়ন্ত্রিত তুলসিহাটা মার্কেট ও সিকিউরিটি রুম।এক দিকে রয়েছে আরো একটি মোটর বাইক শোরুম সহ তুলসিহাটা পেট্রোল পাম্প এবং প্রায় ১০০ মিটার দূরে অগ্নি নির্বাপন কেন্দ্র ও পুলিশ ক্যাম্প থাকা। তা সত্ত্বেও ওই শোরুমে চুরি হওয়ায় পুলিশি নিরাপত্তার অভাব তুলছে স্থানীয় সহ ব্যবসায়ীরা।




%d bloggers like this: