সিনকাইন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের কারুকার্য

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিনকাইন ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল দেশের মধ্যে এক অন্যতম বৃহত্তর ফিল্ম ফেস্টিভাল। এর বিশেষত্ব হল এটার এই বছর প্রথম মরসুম ছিল, তা সত্ত্বেও এটাতে বিশ্বের প্রতিটি কোণ থেকে চলচ্চিত্র নির্মাতারা তাদের তৈরি চলচ্চিত্র প্রদর্শন করার সুযোগ পেয়েছেন। সিনকাইন ফিল্ম ফেস্টিভাল বিশ্বজুড়ে প্রযোজক ও পরিচালকদের আকৃষ্ট করে এবং তারা আনন্দের সাথে তাদের চলচ্চিত্রগুলি তৈরি করেছিলেন।এভাবে সিনকাইন প্রথম মরসুমে বিশ্বের প্রতিটি মহাদেশ থেকে খ্যাতি অর্জন করতে সফল হয়েছিল।

এটিতে ইউএসএ (হলিউড) কানাডার মতো গুরুত্বপূর্ণ দেশগুলির চলচ্চিত্রসহ সারা বিশ্বের 23 টি দেশ ছিল যেমন ব্রাজিল, জার্মানি, আলজেরিয়া , রাশিয়া, জাপান, ইতালি, বেলজিয়াম ও অস্ট্রেলিয়া। এটির প্রথম মরসুম বিহারের মুজাফফরপুরে অনুষ্ঠিত হয়। সিনকাইন ও শিবায় প্রোডাকশন দিন-রাত কঠোর পরিশ্রম করে প্রথম মরসুমে ২০০ টি চলচ্চিত্র প্রদর্শন করতে সফল হয়। এরা বাংলায় নতুন করে নিজেদের গণ্ডি বিস্তার করতে চায়, কোলকাতায় জারা ছোট ছোট চলচ্চিত্র বানায়, তাদের সিনকাইন তুলে ধরতে চায়, সুযোগ দিতে চায় তাদের নির্মাণ দেশে ও বিদেশের কাছে তুলে ধরতে। একইভাবে, এই করোনা সময় কালে একটি দুর্দান্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সিনকাইন খুবই আকর্ষণীয় হওয়ায় মানুষ সিনকাইন সংগঠন সম্পর্কে খুবই আগ্রহী। সিনকাইন ফিল্ম ফেস্টিভালে অফিশিয়াল প্রবেশের জন্য প্রায় ২ মাস সময় লেগেছিল এবং ফিলমফ্রিওয়েতে ২০ থেকে 22 দিনের মধ্যে প্রবেশ করা হয়েছিল, তবুও বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এতগুলো চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছিল, যেটি কঠোর পরিশ্রম উৎসর্গ প্রদর্শন করে।
মানুষ এই দুর্দান্ত কৃতিত্বের জন্য শিবায় প্রোডাকশন ও সিনকাইনের পুরো দলকে অনেক অভিনন্দন জানিয়েছে।




%d bloggers like this: