শিলিগুড়িতে প্রথাভঙ্গঃ পুরুষের বদলে নারীর হাতে পূজিত হলেন বাগদেবী


ভাস্কর চক্রবর্তী, শিলিগুড়িঃ “সরস্বতী মহাভাগে বিদ্যে কমললোচনে বিশ্বরূপে বিশালাক্ষ্মী বিদ্যাংদেহি নমোহস্তুতেঃ” বিল্বপত্র সহযোগে বেদ মন্ত্রচ্চারণের মধ্য দিয়ে, পুরুষ পুরোহিতের দ্বারা বাগদেবীর আরাধনা করার চিরাচরিত প্রথাকে ভেঙে শিলিগুড়ি বুদ্ধভারতী উচ্চ বিদ্যালয় এক মেয়ে পুরোহিত দিয়ে মাতৃ আরাধনায় ব্রতী হয়।

জানা যায়, বিদ্যালয়েরই একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী আয়েশা বিশ্বাসের হাতে বিল্ব পুষ্প ও অন্যান্য উপচার সহযোগে বুধবার বাগদেবী সরস্বতীর পুজো হয় শিলিগুড়ি হায়দরপাড়ার ওই বিদ্যালয়ে। অন্যদিকে, নানান রকম পরামর্শ দিয়ে আয়েশাকে সাহায্য করেছে ওই বিদ্যালয়ের সংস্কৃত বিষয়ের শিক্ষিকা তনুশ্রী পাল।

বিদ্যালয়ের সংস্কৃত বিষয়ের শিক্ষিকা তনুশ্রী পাল জানান, প্রধান শিক্ষক ডেকে বলেছেন এবছর কোনো এক ছাত্রীকে দিয়ে পুজো করানোর কথা। তখনই মাথায় আয়েশার কথা আসে। আর সেইমত সংস্কৃতের ছাত্রী আয়েশা বিশ্বাসকে প্রায় একমাস পুরোহিতের কাজের জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

অন্যদিকে, পুরোহিত ছাত্রী আয়েশা বিশ্বাস বলেন, এবছর সে প্রথমবার সংস্কৃত বেদ মন্ত্রচ্চারণের মধ্য দিয়ে বাগদেবীর পুজো করল। আয়েশা আরও বলে, মেয়েরা সব কিছুতে এগিয়ে যাচ্ছে, মেয়েরাও যে পুজো করতে পারে এটাই আমার ভাবনা
পুরোহিত মানেই পুরুষ, পুরুষের হাতেই দেবদেবীর পুজো করার ঐতিহ্য ভেঙে দিল আমার স্কুল শিলিগুড়ি বুদ্ধভারতী উচ্চ বিদ্যালয়।

উল্লেখ্য যে, গতকাল ওই বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে আলপনা অঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী ১৬ জন শিক্ষার্থীদের আজ বৃহস্পতিবার পুরস্কৃত করা হয়।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপনেন্দু নন্দী জানান, এই বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের মনোবল বৃদ্ধি করতে একদিকে বিভিন্ন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়; অপরদিকে, ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে যাতে বিজ্ঞানমনস্ক দৃষ্টিভঙ্গি গড়ে ওঠে সেই লক্ষ্যে এই প্রচেষ্টা। যা নিয়ে তাঁরা আগামীতে এগিয়ে যাবে।




%d bloggers like this: