কর্মচারিদের অবস্থা দেখতে বাঁকুড়ার বিজেপি সাংসদ ডাঃ সুভাষ সরকার

তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়াঃ
দেশ জুড়ে ৫০ দিনেরও বেশী ‘লক ডাউন’ অতিক্রান্ত। এই মুহূর্তে ‘গ্রীণ জোনে’ থাকা দোকানপাট খোলা থাকলেও বিক্রি বাটা নেই বললেই চলে। ফলে ঐ সব ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কর্মচারীদের বর্তমান অবস্থা খতিয়ে দেখতে পথে নামলেন বাঁকুড়ার বিজেপি সাংসদ ডাঃ সুভাষ সরকার। এদিন তিনি বাঁকুড়া শহরের মাচানতলা ও কুচকুচিয়া রোড এলাকার দোকান গুলি ঘুরে দেখেন। কথা বলেন কর্মচারী থেকে দোকান মালিক সকলের সঙ্গে।

পরে সুভাষ সরকার সাংবাদিকদের বলেন, লক ডাউনে শহরের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গুলির কর্মচারীদের বর্তমান অবস্থা খতিয়ে দেখা ও তারা বেতন পাচ্ছেন কিনা তা দেখতেই বেরিয়েছিলাম। এদিন তিনি সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, সব ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কর্মীরা বেতন পাচ্ছেন। কোন কোন জায়গায় একশো শতাংশ না হলেও ৭০ থেকে ৯০ শতাংশ বেতন তারা পেয়েছেন।

বাঁকুড়া ক্লথ এণ্ড গার্মেন্টস্ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক রবিশঙ্কর সুরেকা বলেন, আমরা সংগঠনগতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এই লক ডাউন পরিস্থিতিতেও সমস্ত কর্মচারীকে এপ্রিল, মে মাসের সম্পূর্ণ বেতন দেওয়া হবে। তবে যেহেতু এবার পুজোয় বিক্রিবাটা কম হবে সেকারণে বোনাস দেওয়া হবেনা। এরপরেও পরিস্থিতি জটিল হলে দোকান দীর্ঘদিন বন্ধ রাখতে হলে সেক্ষেত্রে অর্ধেক বেতন কর্মচারীদের তারা দেবেন বলেও জানান।




%d bloggers like this: