উরুষ উৎসবে যোগদানের জন্য বাংলাদেশ থেকে তীর্থযাত্রীবাহি বিশেষ ট্রেন

নিজস্ব সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুর: যখন সারা দেশ জুড়ে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে তখন ই দুই বাংলায় শান্তি র বার্তা নিয়ে ভারত তথা পশ্চিম বঙ্গে ১১৯ তম ঊরুষ উৎসবে যোগ দিতে মেদিনীপুর শহরে মাওলা পাকে এলো বাংলাদেশ থেকে এক বিশাল তীর্থযাত্রীবাহি বিশেষ ট্রেন। দু’দেশের সম্পর্কে প্রতিবছরের মতো এবছরও ফাল্গুন মাসের ৪ তারিখে এই বিশেষ দিনে আসে বাংলাদেশি তীর্থযাত্রীরা।

এবছর বাংলাদেশ থেকে স্পেশাল ট্রেন এসেছে, মোট ২২১৯জন তীর্থযাত্রী , এদের মধ্যে পুরুষ রয়েছেন ১২২০, মহিলা ৯৯৩, ও শিশু ১০৬ জন। গত ১৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার রাত্রি ১০টায় বাংলাদেশের রাজবাড়ি থেকে ট্রেনটি ভারতের উদ্দেশ্যে ছাড়ে। ১৭ তারিখ রবিবার সকাল ৬ টায় মেদিনীপুর স্টেশনে এক নম্বর প্লাটফর্মে পৌঁছায়, তীর্থযাত্রীবাহী এই ট্রেনটি। ১৭ এবং ১৮ তারিখ মেদিনীপুর শহরের মিয়াবাজার জোড়া মসজিদ এর মাওলা পাকের উরুষ উৎসবে যোগ দেন আগামীকাল ১৮ই ফেব্রুয়ারি রাত্রিবেলায় তারা আবার বাংলাদেশ যাওয়ার জন্য সেই বিশাল ট্রেনে চেপে রাওয়ানা হবে। পূণ্যার্থীদের কে আপন করার জন্য মেদিনীপুর মুসলিম কমিটি, জেলা প্রশাসন , জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক বৃন্দর পক্ষ থেকে ফুল ও মিষ্টির প্যাকেট দিয়ে তাদেরকে স্বাগতম করে। করোনার আতংকে র স্বাস্থ্য দপ্তরের নজরদারি ছিল। পাশাপাশি জেলা গোয়েন্দা সংস্থা ও কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা র নজরদারি ছিল চোখে পড়ার মতো। নাগরিকত্ব আইন নিয়ে যাতে কোনো রকম প্রভাব, বা উত্তেজনা না ছড়িয়ে পড়ে তার জন্য পুলিশ প্রশাসন কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।




%d bloggers like this: